স্বাস্থ্যবিধির চাপে ‘নিষ্প্রাণ’ এবারের শারদীয় দুর্গাপূজা ॥ বৃহস্পতিবার থেকে ৫ দিন ব্যাপী শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে

স্বাস্থ্যবিধির চাপে ‘নিষ্প্রাণ’ এবারের শারদীয় দুর্গাপূজা ॥ বৃহস্পতিবার থেকে ৫ দিন ব্যাপী শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে

 

স্টাফ রিপোর্টার : হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজা। যা ‘অকালকালের এ পূজাকে ঘিরে মন্দিরে, ম-পে প্রস্তুতি থাকলেও, সেখানে নেই প্রাণের উচ্ছ্বাস। মহামারি করোনা মোকাবিলায় পূজা আয়োজন হবে সীমিত পরিসরে। উৎসব-সংশ্লিষ্টতা বাদ দিয়ে সাত্ত্বিক পূজায় সন্তুষ্ট থাকতে হবে দশভূজা দেবী দুর্গার ভক্তদের। বুধবার (২১ অক্টোবর) বোধনের মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গাপূজার ঢাকে পড়েছে কাঠি। দক্ষিণায়নের নিদ্রিত দেবী দুর্গার নিদ্রা ভাঙার জন্য বন্দনাপূজার মধ্য দিয়ে দেবীর বোধন হবে। বুধবার পঞ্চমী তিথিতে সায়ংকালে অর্থাৎ সন্ধ্যায় এই বন্দনাপূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তবে পূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) মহাষষ্ঠী থেকে। দেবী দুর্গার আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হবে পূজার আনুষ্ঠানিকতা। এ বছর দেবী দুর্গা দোলায় আগমন করবে এবং বিজয়া দশমীর মধ্য দিয়ে গজে গমন করবে। ২৩ অক্টোবর মহাসপ্তমী, ২৪ অক্টোবর মহাষ্টমী, ২৫ অক্টোবর মহানবমী এবং ২৬ অক্টোবর বিজয়া দশমী ও প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে পাঁচ দিনের দুর্গাপূজা। এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মধ্য দিয়ে সূচনা হয়েছিল দেবীপক্ষের। আশ্বিন মাসে এ পূজা অনুষ্ঠিত হলেও এ তা কার্তিক মাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। অর্থাৎ মহালয়ার ৩৫ দিন পর তা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর কারণ সম্পর্কে জানা যায়, আশ্বিন মাসের পরপর দুটি অমবস্যা পড়ে যাওয়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের রীতি নীতি অনুযায়ী ওই মাসকে মলয় মাস হিসেবে আখ্যা করে হিন্দু সম্প্রদায়ের সকল ধর্মীয় অনুষ্ঠান পরবর্তী তিথি অনুযায়ী করা হচ্ছে। সনাতন পঞ্জিকা মতে, এবার দেবী দুর্গা এবার দোলায় (পালকি) চেপে স্বর্গালোক থেকে মর্ত্যলোকে (পৃথিবী) আসবেন। এর ফল হচ্ছে মড়ক। প্রাকৃতিক দুর্যোগ, রোগ ও মহামারির বেড়ে যাওয়ার লক্ষণ। দেবী বিদায় নেবেন গজে (হাতি) চড়ে। এর ফল হিসেবে শস্যপূর্ণা হয়ে উঠবে বসুন্ধরা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536